আমার স্ত’ন রয়েছে, আর সেগুলো যথেষ্ট সুন্দর: অভিনেত্রী শমা সিকান্দার

আমার শরীর৷ আমার ইচ্ছা৷ আমি চাইলেই ক্যামেরার সামনে নগ্ন হয়ে দাঁড়াতে পারি৷ আমার শরীর, আমি বুঝব কীভাবে শো অফ করা উচিত৷”

অসংখ্য ট্রোলারদের এই ভাবেই জবাব দিলেন অভিনেত্রী শমা সিকন্দর৷ বিকিন পরার জন্য সর্বদাই বহু অভিনেত্রীদের ট্রোলড হতে হয়৷ তা সে বলিউডের দিশা পাটানি হোক কিংবা টেলিভিশন অভিনেত্রী শমা সিকন্দর৷ শমা বিকিনি পরতে ভীষণই ভালোবাসেন৷ তাঁর কাছে বিকিনি পরা মোটেই বোল্ডনেসের পর্যায় পড়ে না৷

তাঁর কথায়, “নিজেকে নিয়ে কমফার্টেবল হলে তুমি যেভাবে ইচ্ছে পোশাক পরতে পার৷ কারও কোনও অধিকার নেই বলার তুমি কী পরবে না পরবে৷ আর এইসব ট্রোলের জবাব সরাসরি দেওয়া মানে নিজের সময় নষ্ট করা৷

কারণ এই ধরণের ট্রোলারদের মানসিকতা খুব নিম্নমানের৷ ওদের জবাবদিহি করতে গেলে আমাকেও অনেকটা নীচে নামতে হতে পারে৷ তবুও আমি অত্যন্ত ভদ্রভাবে একবার ট্যুইট করেছিলাম ওদের জবাব দিয়ে৷ ওরা যে কতটা ফ্রাসট্রেটেড সেটাই বারবার প্রমাণিত হয়৷”

বিকিনি পরা ছবি পোস্ট করলেই নানা ধরনের কমেন্টে ট্রোলড হতে হয়েছে শমা সিকন্দরকে। এরপরই তিনি কড়া জবাব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

এক ট্যুইটে রীতিমত ঝড় তুলে দিয়েছিলেন তিনি। কমেন্টের জবাব দিয়ে তিনি লিখেছিলেন, ‘আমার স্ত’ন রয়েছে, আর সেগুলো যথেষ্ট সুন্দর।’

অস্ট্রেলিয়া ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে গিয়ে একের পর এক বিকিনি ছবি শেয়ার করেছিলেন এই অভিনেত্রী। সেই ছবি ভাইরাল হতেই একদিকে যেমন প্রশংসা শুরু হয়েছিল, অন্যদিকে তেমনই কটাক্ষও করেছিল একদল মানুষ।

অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র সৈকত থেকে যখন একের পর এক বিকিনি ছবি শেয়ার করে কটাক্ষের মুখে পড়ছিলেন শমা, সেই সময় তার উত্তরও দিয়েছিলেন বেশ গুছিয়েই।

শমা বলেছিলেন, ‘একজন মহিলার স্তন থাকবেই। এবং, এই স্ত’নই পুরুষদের চেয়ে মহিলাদের পৃথক করতে সাহায্য করে। আমারও স্ত’ন আছে।’

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *