১২ বছরে এক দিনও সুখ খুঁজে পাইনি

১২ বছরের আঁধার সয়ে এসেছেন তিনি। এই গল্প সেই মানুষটির, এক সময়ে যাঁর নেশায় মেতে থাকত পর্দা, বুঁদ হয়ে থাকতেন দর্শক। এত জনপ্রিয়তা, এত ভালবাসা পাওয়া সেই মানুষটিরই অন্দরমহল অন্ধকারে ঢাকা।

তিনি জিনত আমন। তাঁর কথায়, ‘‘আমি এমন একটি সুরঙ্গের মধ্যে আটকে ছিলাম, যার শেষে কোনও আলো নেই।’’

সিমি গারেওয়ালের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছিলেন জিনত। মজহর খানের সঙ্গে নিজের দাম্পত্যের অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিয়েছিলেন ‘দম মারো দম গার্ল’।

জিনত বলেছিলেন, ‘‘মজহর কখনও আমাকে আলাদা এক জন মানুষ বা অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে তৈরি করতে দেয়নি। ও চাইত, সব সময়ে বাড়িতে থেকে সন্তান প্রতিপালন করি।’’

বিয়ের এক বছর পর থেকেই জিনত বুঝতে পারেন, ভুল করে ফেলেছেন জীবনের অঙ্কে। তবু সেই দাম্পত্য থেকে বেরিয়ে যেতে চাননি লাস্যময়ী অভিনেত্রী। আরও ১২ বছর সেই মানুষটির সঙ্গেই সংসার ধর্ম পালন করেছেন ‘সত্যম শিব সুন্দরম’-এর নায়িকা। জিনতের কথায়, ১২ বছরে এমন একটি দিনও মনে পড়ে না, যে দিন আমি আনন্দে কাটিয়েছি।

১৯৯৭ সালে মজহরের সঙ্গে জিনতের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। তবে নিজের সন্তানদের কখনও নিজের থেকে আলাদা করেননি এক কালের পর্দা কাঁপানো ভ্যাম্প-নায়িকা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *