লাল ব্লাউজে উন্মুক্ত ব’ক্ষ বিভাজিকা , লাস্যময়ী হয়ে পূজার সাজে ভাইরাল স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।

টলিউডের এভারগ্রীন এবং অসম্ভব সুন্দরী নায়িকাদের মধ্যে বর্তমানে প্রথমেই যার নাম মনে পরে তিনি হলেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। কখনো নিজের সেক্সি লুক আবার কখনো নিজের অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকদের মন জয় করে এসেছেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়াতে দারুণভাবে অ্যাক্টিভ অভিনেত্রী। মাঝেমধ্যেই নিজের ফটোশুট এর বিভিন্ন ছবি ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এ পোস্ট করেন তিনি। এবারে পুজোতে নিজেকে কাতান শাড়িতে সাজিয়ে তুললেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।

সামনেই পুজো, প্রতিবছর পুজোতেই নতুন ফ্যাশন ট্রেন্ডের নজর থাকে আট থেকে আশি সকলেরই। আর সেই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর মেলে সেলিব্রিটিদের প্রোফাইলে। ঝড়ের বেগে ভাইরাল হয়ে যাওয়া ফ্যাশন ট্রেন্ডের এবার নজর কেড়েছেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।

বরাবরই নিজের স্টাইলিশ বা সাবেকি দুই লুকেই তিনি দর্শকদের নজর কেড়েছেন বারবার। এবারেও সাবেকি উষ্ণ লুকে ভাইরাল অভিনেত্রী। দুপুর ঠাকুরপো ওয়েব সিরিজে তিনি সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন, তাঁর অসাধারণ অভিনয় এবং রূপেই অর্ধেক পুরুষেরা ঘায়েল হয়েছিল। সেই লুকিয়ে আর একবার ফিরলেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে তার পরনে রয়েছে বেগুনি রঙের কাতান শাড়ি। খোপায় রয়েছে গোলাপ এবং হালকা মেকআপে মোহময়ী হয়ে উঠেছেন এই অভিনেত্রী। রবিবার সকালে নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাকাউন্ট থেকে সেই সমস্ত ছবি ভাগ করে নিলেন তিনি। বিভিন্ন রকম পোজে অভিনেত্রী লাস্যময়ী রূপে ধরা দিয়েছেন। নিজের রূপের আগুনে বহু পুরুষের মন পুড়িয়েছেন তিনি। আর মুহূর্তেই ভাইরাল হয় ওই ছবি।

মেকআপ, শাড়ি, ফটোগ্রাফার সমস্ত কিছুর খোঁজই তিনি দিলেন নিজের ক্যাপশন এর মাধ্যমে। পুজোর আর মাত্র কয়েকটা দিন বাকি, হাতে খুবই কম সময় এরই মধ্যে কেনাকাটা সারছেন সকলে। বাদ যাননি সেলিব্রেটিরাও, বিভিন্ন সংস্থার থেকে নবরূপে সেজে উঠেছে পুজোর জন্য।

আর এবারে নিজের পুজোর লোক হিসেবে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় বেছে নিলেন কাতান শাড়ি কে। বরাবরই শাড়িতে মোহময়ী লাগে নারীদের, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়কে যেন আরও মোহময়ী করে তুলেছে এই শাড়ি। এমনিতেই এই অভিনেত্রী বরাবর এভারগ্রীন বয়স বাড়লেও নিজের রূপের বয়সের একটুও বাড়েনি তার। এখনও অনেক টলিউডের উঠতি অভিনেত্রী কে পাল্লা দিতে পারেন তিনি। আর এবারের পুজোর স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের এই সাজে মুগ্ধ হয়েছেন দর্শকেরা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *