বয়স নিয়ে কটাক্ষ, ছবি আপলোড দিয়ে উচিত জবাব দিলো শ্রীলেখা মিত্র

টলিউড (Tollywood) অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রের (Sreelekha Mitra) সঙ্গে অনেকেরই ঠিক বনে না। বরাবর বাম মনোভাবাপন্ন স্পষ্টবাদী মেজাজের শ্রীলেখা এযাবৎকালীন কারোরই ধার ধারেননি।

টলিউড হোক বা রাজনীতি, সহকর্মীদের সঙ্গে মনোমালিন্য হলে তার স্পষ্ট উল্লেখ করেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। মতভেদ হলেও কখনও চুপ থাকেননি।

সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ অ্যাকটিভ থাকেন শ্রীলেখা। সদ্য ফেসবুকে তিনি নিজের নো মেকআপ লুক তুলে ধরেছেন। সেখানে স্পষ্ট ধরা পড়েছে তার পাকা চুল। যদিও পাকা চুল লুকোতে অভ্যস্ত নন অভিনেত্রী।

চুলে পাক ধরলে তা লুকোতে হবে কেন? চুলে পাক ধরা নিয়ে বিন্দুমাত্র বিচলিত নন টলিউড অভিনেত্রী। বরং তার যুক্তি, চুলে পাক ধরলে বুদ্ধিও পাকে!

এর আগেও মেকআপ ছাড়া ঘরোয়া পোশাকে বহুবার নিজের সেলফি তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী।

তার সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বরাবর প্রশংসা কুড়িয়েছে। তবে ট্রোলিং কখনও শ্রীলেখার পিছু ছাড়ে না। তাই ছবির সঙ্গে জুড়ে দিলেন ট্রোলারদের উদ্দেশ্যে বিশেষ বার্তা।

রবিবার ফেসবুকে ছবি শেয়ার করে শ্রীলেখা লিখলেন, “আমার মাথার সাদা অংশ (আমার পাকা চুল) হ্যাঁ আমার বয়স বাড়ছে আপনাদেরই মতো। আর সাথে বুদ্ধিও বাড়ছে। বেড়েছে ধৈর্য, পেয়েছি প্রশংসাও। তবে বন্ধু কমেছে, শত্রু বানিয়েছি আর কিছু অর্থ উপার্জন করেছি। সুতরাং আমাকে ‘বয়স নিয়ে কটাক্ষ’ করার আগে আমার একটু প্রশংসা করুন। আর নিজেকে জিজ্ঞেস করুন কেন আমায় নিয়ে এত পাগল আপনারা? বাজারে থুরি রাজ্যে কি রাজকন্যে কম পড়েছে?”

উল্লেখ্য, সোশ্যাল মিডিয়াতে এর আগে বহুবার ‘বুড়ি’, ‘কম-রেট’, এমনকি ‘থলথলে বৌদি’ও শুনেছেন শ্রীলেখা মিত্র। তবে বরাবর এহেন কটাক্ষের বিরুদ্ধে তিনি সোচ্চার হয়েছেন।

শুধু সোশ্যাল মিডিয়াতেই নয়, নিজের আবাসনের পড়শীদের সঙ্গেও নিত্য তার খিটিমিটি লেগেই থাকে। শ্রীলেখা পশুপ্রেমী, তবে তার পড়শীদের সেসব পছন্দ নয়।

এই নিয়ে ফেসবুক লাইভের সামনে সদ্য ঝামেলাও হয়েছে শ্রীলেখার। যে কারণে আবাসন ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অভিনেত্রী।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *