প্রকাশ্যে ন;গ্ন হয়ে শরীর দেখালেন রাধিকা আপ্তে, ভিডিও মুহুর্তেই ভাইরাল

২০১৬ সালে মুক্তি পেয়েছিল রাধিকা আপ্তে (Radhika Apte) এবং আদিল হুসেন অভিনীত ছবি ‘পার্চড’ (Parched)। এই ছবির একটি ন;গ্ন দৃশ্য নিয়ে নেটিজেনরা রাধিকার বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন।

৫ বছর পর আবারও ন;গ্ন দৃশ্যে অভিনয়ের দরুন রাধিকার বিরুদ্ধে খড়গহস্ত হয়েছেন নেটিজেনরা। তাদের দাবি, নেট মাধ্যমে ‘অ;শ্লীলতা’ ছড়িয়ে দিচ্ছেন রাধিকা। অতএব রাধিকাকে বয়কটের (Boycott Radhika Apte) দাবি উঠছে সমাজ মাধ্যমে।

শুক্রবার সকাল থেকেই Boycott Radhika Apte হ্যাশট্যাগে ভরে উঠছে টুইটার। রাধিকার সেই পুরনো ছবি এবং আদিল হুসেনের সঙ্গে তার অ;ন্তর;ঙ্গ দৃশ্য নিয়েই উত্তাল হয়ে উঠেছে সমাজমাধ্যম।

ওই ছবির বিতর্কিত দৃশ্যটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আবার ভাইরাল হয়েছে। ওই দৃশ্যে রাধিকাকে ক্যামেরার সামনে ন;গ্ন অবস্থায় দেখানো হয়েছে।

বিবস্ত্র রাধিকা আদিল হুসেনের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করছেন, এমনই একটি ভিডিওকে কেন্দ্র করে বিতর্ক শুরু হয়েছে।

নেটিজেনদের দাবি, ‘এটা আমাদের সংস্কৃতির অপরিপন্থী’। একইসঙ্গে বলিউডকে নিয়েও জোর সমালোচনা শুরু হয়েছে।

জনৈক নেটিজেনের দাবি, বলিউডে এমন জঘন্য দৃশ্য দেখানো হলেও সেই নিয়ে কারোর মুখে কোনও কথা শোনা যায় না।

অথচ পৃথিবীর কোথায় কি হচ্ছে সেই নিয়ে তাদের কথা বলতেই হবে! আবার আরেকজন লিখেছিলেন, “তাদের সিনেমা এতটাই বাজে যে আমি কোনও ছবি-ভিডিয়ো দিতে পারলাম না।

আসল ব্যাপার হচ্ছে তাঁরা সমাজের মধ্যে অ;শ্লীলতা ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। অবিলম্বে তাঁদের ব্যান করা হোক দেশ থেকে”।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ‘পার্চড’ ছবির বিতর্কিত ওই দৃশ্যটি যখন প্রথমবার প্রকাশ্যে এসেছিল তখনও সমাজমাধ্যমে রাধিকাকে নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়। তবে বিতর্ককে অবশ্য গুরুত্ব দেননি রাধিকা।

আদিল হুসেনের সঙ্গে অ;ন্তর;ঙ্গ দৃশ্যের শুটিং নিয়ে বলতে গিয়ে রাধিকা জানিয়েছিলেন এই দৃশ্যের শুটিং তার পক্ষে মোটেই সহজ ছিল না। এমনকি একসময় তিনি নিজের চেহারা নিয়েও যে হীনমন্যতায় ভুগতেন, সে কথাও স্বীকার করে নেন তিনি।

রাধিকা জানিয়েছিলেন, “ন;গ্ন হয়ে ক্যামেরার সামনে অভিনয় করা সেই সময় আমার জন্য সহজ ছিল না। কারণ, তখন আমার শরীর নিয়ে নানা ধরনের সমালোচনা হত।

এখন যেমন আমি আমার শরীর নিয়ে কনফিডেন্ট। কোনও ধরনের হীনমন্যতার জায়গাই নেই আর। আমার বডি শেপ আর সাইজ নিয়ে এখন আমার গর্ব হয়।”

তিনি স্পষ্ট বলেছিলেন, “আমার এরকম একটা চরিত্রে অভিনয় করা দরকার ছিল, কারণ যখনই তুমি বলিউডে আসবে তোমাকে বলা হবে ছিক এরকম ফিগার বা মুখ না হলে তুমি টিকতে পারবে না”

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *