ছেলেকে স্ত;ন্যপান করানোর ছবি শেয়ার করে ভাইরাল হলেন সেলিনা জেটলি

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সেলিনা জেটলি এখন চার সন্তানের জননী। দুবার অ;ন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন আর দুবারই যমজ সন্তানের জননী হয়েছেন এই অভিনেত্রী।

ঠিক ৯ বছর আগে তিনি প্রথম দুই সন্তানের মা হন। প্রথমবার দুই সন্তানের মা হওয়াতে বেশ খুশি হন অভিনেত্রী। তবে সেই সময়ে তাঁকে নানান ভাবে নানান কটুক্তির স্বীকার হতে হয়েছিল।

সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে ৯ বছর আগে নিজের সন্তানের সাথে কাটানো একটি ছবি শেয়ার করেছেন সেলিনা।

তিনি যে ছবি শেয়ার করেছিলেন তখন তাঁর দুই যমজ সন্তান উইনস্টন আর বিরাজের বয়স মাত্র ১ মাস।

তবে এই ছবি আগেও প্রকাশ্যে এসেছিল। না কোনো সোশ্যাল মিডিয়ার পাতাতে নয়, স্টারডাস্ট ম্যাগাজিন ইন্ডিয়া-র কভারে সে সময় ছাপানো হয়েছিল সেই সব ছবি।

তখন সেই সময়ে মানুষ এত অ্যাডভান্সড ছিল না তাই অভিনেত্রীকে অনেক কটুক্তি শুনতে হয়। শুধু সেলিনা নয় পাশাপাশি ম্যাগাজিনের এডিটর রামকমল মুখোপাধ্যায়-কেও।

সেলিনা জানান তিনি সেই সময় ভেবেছিলেন তাঁর জীবনের একটা খুব সুন্দর মুহূর্ত তুলে ধরতে চলেছেন কিন্তু তা আসলে হয়নি, বরং সেই মুহূর্ত নিয়ে চলে ট্রোলিং।

কি ছিল সেই ছবিতে? পুল ধারে বসে অভিনেত্রী সবুজ বি;কিনি পরিহিত। আর তাঁর এক ছেলেকে অভিনেত্রী ব্রে;স্ট ফি;ডিং করেছেন আর একজন পাশে আছেন।

সেলিনা বলেন, তিনি সদ্যোজাত যমজের সঙ্গে কাটানো একটা সুন্দর মুহূর্তই তিনি ক্যামেরায় ফ্রেমবন্দী করেছিলেন।

সেলিনা এই ছবির প্রসঙ্গে লেখেন, আসলে তিনি ও তাঁর একমায়ের দুই ছেলেকে নিয়ে দুবাইতে একটা খুব সুন্দর সকালে পুলের ধারে বসে সময় কাটাচ্ছিলেম। তিনি সেই সময় সি-সেকশন থেকে সেরে উঠেছেন আর দুই ছেলে এত সুন্দর পরিবেশে হাত পা ছুঁড়ে খেলা করছে।

তিনি আরো বলেন সেই সময় কেন এই ছবি দেখে তাঁকে এত ট্রোল করা হয়েছিল। যাদের ওজন বেশি হয় তাদের সবাইকে সমালোচনা করা হয় এমনকি যাদের দেখতে সুন্দর লাগে তাদেরও সবাই সমালোচনা করবে।

এমনকি এক মায়ের সন্তানের হওয়া প্রতিটা সমস্যার জন্য মাকে নিয়ে সমালোচনা করা হয়। আসলে মেয়েদের সমালোচনা করাটা যেন বেশি সহজ।

সেলিনা আরও বলেন, প্রথম গর্ভাবস্থায় তিনি জেস্টেশনাল ডায়াবেটিসের শিকার হয়েছিলেন। তাই নিজের খাওয়াদাওয়ার দিকেও অভিনেত্রীকে কড়া নজর দিতে হত কারণ সেই সময় সন্তানদের কোনও ক্ষতি না হয়।

এক ছেলেকে কোলে নিলে অন্যজনকেও তিনি নিজের পাশে শুইয়ে দিতেন কারণ ডাক্তার তাঁকে বলেছিলেন সদ্যোজাতদের অ্যাক্টিভিটি সর্বদা চোখেচোখে রাখতে।

তিনি বলেন, এই ছবিতে যে ছেলে তম্যাটের ওপর শুইয়ে রেখেছেন তাঁর কোমরে ডিস;প্লেশিয়ার সমস্যা হয়েছিল। তাই ডাক্তারই উপদেশ দিয়েছিল তাঁকে হাত-পা ছুঁড়ে খেলতে দিতে।

আর সে সময় ওর ওপর কড়া নজর রাখতে হত। কিন্তু সবাই সেলিনাকে ভুল বোঝে কারণ তিনি নাকি ভালো পোজ দেওয়ার জন্য এক শিশুকে রীতিমতো অবহেলা করছেন।

তিনি আরো বলেন, কোনও ছবি দেখেই সেই ছবির ভিতরের মানুষটাকে বিচার করা কোনোভাবে উচিত নয়। কারণ সেই ছবির পিছনেও আছে এক একটি গল্প। সেটা না জেনেই ট্রোল বা সমালোচনা না করা উচিত।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *