কার প্রেমে হাত কাটা থেকে অভিনয়ও ছাড়তে রাজি ছিলেন সাইফ পত্নী কারিনা কাপুর জেনে নিন

গ্ল‍্যামার জগতে যে কতশত সম্পর্ক জুড়েছে আর কত ভেঙেছে তার ইয়ত্তা নেই। এক সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আরেক সম্পর্কে জড়ানোটা বাঁ হাতের খেল বানিয়ে ফেলেছেন বলিউডের তাবড় অভিনেতা অভিনেত্রীরা। এই তালিকায় রয়েছেন করিনা কাপুর খানও ।

এখন সইফ আলি খানের বেগম হলেও বিয়ের আগে একাধিক সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন করিনা। তাঁর প্রেমিকদের তালিকায় নাম রয়েছে হৃতিক রোশনের নামও ।

এক সময় ইন্ডাস্ট্রিতে চর্চার মধ‍্যমণি ছিলেন করিনা ও হৃতিক। একাধিক ছবিতে দুজনের চমকপ্রদ রসায়নের জেরেই তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন তুঙ্গে উঠেছিল। পর্দায় দুজনের প্রতিটি ছবির পরেই গুঞ্জনের আগুনে আরো ঘি পড়ত। এসব অবশ‍্য সইফের সঙ্গে করিনার বিয়ের অনেক আগের ব‍্যাপার।

সে সময় সবে সবে বলিউডি কেরিয়ার শুরু করেছেন করিনা। ২০০১ সালে ‘কভি খুশি কভি ঘম’ ছবিতে জুটি হিসেবে দেখা গিয়েছিল হৃতিক করিনাকে। এই ছবির পরেই যাবতীয় ফিসফাসের শুরু। কিন্তু সে সময়ে করিনা সিঙ্গল হলেও হৃতিক বিয়ে করে ফেলেছিলেন সুজান খানকে।

বিবাহিত হৃতিককেই মন দিয়ে বসেছিলেন করিনা! এমনকি অভিনেতার জন‍্য নাকি হাতের শিরাও কেটেছিলেন তিনি। রাজি ছিলেন ফিল্মি কেরিয়ার বিসর্জন দিতে।

শোনা যায়, দুজনের বাড়াবাড়ি চরম পর্যায়ে পৌঁছালে বাধ‍্য হয়ে হৃতিকের পরিবারকে নাক গলাতে হয়। সাবধান বাণীও শুনেছিলেন বেবো, হৃতিকের সঙ্গে বেশি মেলামেশা করলে ফল ভাল হবে না। কিন্তু পরে এক সাক্ষাৎকারে এসব গুঞ্জনকে গুজব বলে উড়িয়ে করিনা দাবি করেছিলেন তিনি নাকি হৃতিকের বিয়ে নিয়ে বেশি চিন্তায় ছিলেন। যদি এসব গুজবে তাঁর বিয়েটা ভেঙে যায়!

করিনা আরো দাবি করেন, কোনো পুরুষের জন‍্য কখনোই নিজের কেরিয়ার বিসর্জন দেবেন না তিনি। বরং যদি কেউ তাঁকে এটা বলেও তাহলে লাথি মেরে তাড়িয়ে দেবেন। শুধু মুখে নয়, কাজেও করে দেখিয়েছেন করিনা। সইফের সঙ্গে বিয়ের পরেও চুটিয়ে কাজ করেছেন। এমনকি প্রেগনেন্সির সময়েও বিরতি নিতে দেখা যায়নি করিনাকে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *