এ কাকে সিঁদুর পড়ালেন যশ ! ভিডিও ভাইরাল

বিয়ে করলেন যশ দাশগু”প্ত । সিঁথিতে চওড়া করে পরিয়ে দিলেন সিঁদুর। ল’জ্জা মাখা চাহনি চেয়ে থাকতেও দেখা গেল নব বধুকে। বিশ্বা’স না হলে অবশ্যই ঘুরে আসতে হবে কমেডিয়ান স্যান্ডি সাহার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল। হ্যাঁ, যষের নতুন বউ তিনিই।

দিন কয়েক আগেই পুজো উপলক্ষে দেখা হয়েছিল যশ-স্যান্ডির। সেখানেই যশের স’ঙ্গে শেয়ার করা এক ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছেন যশ গেরুয়া রঙের সিঁদুর পরিয়ে দিচ্ছেন স্যান্ডির মাথায়।

সেই ভিডিয়ো শেয়ার করে যশ লিখেছেন, “অবশেষে যশকে বিয়ে করে নিলাম। যশ, তোমা’র স’ঙ্গে সারাজীবন থেকে যাব’।” নিছকই মজার ছলে করা যশ-স্যান্ডির এই পাব্লিসিটি স্টান্ট। তবে নেটিজেনদের যে তা আনন্দ জুগিয়েছে তা বলার অ’পেক্ষা রাখে না।
দিন কয়েক আগেই প্রকাশ্যে এসেছে যশ দাশগু”প্ত ের পুনরায় বাবা হওয়ার সংবাদ।

অ’ভিনেত্রী-সাংসদ নুসরত জাহানের সন্তান ঈশানের জন্মসনদে বাবার নামের জায়গায় লেখা রয়েছে যশের নাম। বার্থ সার্টিফিকে’টে ঈশানের বাবার নামের জায়গায় লেখা ছিল দেবাশিস দাশগু”প্ত । যশেরই আর এক নাম দেবাশিস। এ নিয়ে যশ-নুসরত যদিও প্রকাশ্যে কিছু বলেননি তবে এনা সাহার বিশ্বকর্মা পুজোয় হাজির ছিলেন নুসরতও।

সেখানেই ট্র্যাডিশনাল পোশাকে দেখা যায় তাঁকে। মাথায় ছিল সিঁদুর। প্রশ্ন ওঠে, নুসরত কি বিয়ে করেছেন? নিখিলের স’ঙ্গে বিয়ে তিনি মানেন না, তাঁকে সহ’বাস স’ঙ্গী আখ্যা দিয়েছেন। সে ক্ষেত্রে নুসরতের স্বামী কে? যদিও এ বি’ষয়ে নীরব যশ-নুসরত।

গত ২৬ অগস্ট, মা’দার টেরেসার জন্ম’দিনের দিনই, পার্ক-স্ট্রিটের একটি হাসপাতালে সন্তানের জন্ম দেন নুসরত। সন্তানের নাম রেখেছেন ‘ঈশান’। যার ইংরেজি বানান ‘Yishaan’।

নুসরতের ডেলিভারি পর্বে সারাক্ষণ অ’ভিনেতা যশ তাঁর স’ঙ্গে হাসপাতালে ছিলেন। তাঁকে তিনিই গাড়ি চালিয়ে নিয়ে গিয়েছিলেন হাসপাতালে। সন্তান জন্মানোর পর যশ জানিয়েছিলেন, নুসরত ও সদ্যোজাত ভাল আছে। হাসপাতালে ছিলেন নুসরতের পরিবারের সদস্যরাও।

এ সবের মাঝে নুসরতকে অ’ভিনন্দন জানাতে পিছপা হননি নিখিল জৈন। নুসরতের স’ঙ্গে তাঁর কোনও যোগাযোগ নেই। মা এবং সন্তানকে তিনি দেখতে যাব’েন না বলেছেন ঠিকই, কিন্তু নুসরতের সন্তানের ম’ঙ্গল কামনা করেছেন নিখিল। নুসরতের মা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসতেই নিখিল জৈন জানিয়েছিলেন সন্তানের বাবা তিনি নন।

অন্য দিকে, নুসরত এক বিবৃতিতে জানিয়েছিলেন নিখিলের স’ঙ্গে তুরস্কতে যে ‘বিয়ে’ হয়েছিল তাঁর তা ভারতে ‘বৈধ’ নয় কারণ আইনত তাঁদের বিয়ে হয়নি। তাঁরা লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *