অবশেষে নুসরাতকে নিয়ে যে ১টি কথা স্বীকার করলো যশ দাশগুপ্ত

মা হয়েছেন টলিউড (Tollywood) অভিনেত্রী নুসরাত জাহান (Nusrat Jahan)। মা হওয়ার এই সফরে নুসরাত বরাবর পাশে পেয়েছেন তার সঙ্গী যশ দাশগুপ্তকে (Yash Dasgupta)।

নুসরাতের সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়াতে যশ দাশগুপ্তর জীবনেও এখন বিশেষ খুশির মুহূর্ত এসে উপস্থিত হয়েছে। নুসরাতের সন্তান, যশেরও সন্তান।

নেটিজেনরা এ বিষয়ে নিশ্চিত। কিন্তু শিশুর বাবা-মা প্রকাশ্যে এই বিষয়ে মন্তব্য করার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন না। তবে নুসরাতকে এবার প্রকাশ্যেই নিজের ‘সঙ্গিনী’ বলে স্বীকার করে নিলেন যশ।

যশ এবং নুসরাতের সম্পর্ক নিয়ে বিগত প্রায় কয়েক মাস ধরে নেটমাধ্যমে বহু জল্পনা চলছে। একসঙ্গে রাজস্থানে ঘুরতে যাওয়া, একত্রে ডিনারে যাওয়া কিংবা বৃষ্টিভেজা পার্কষ্ট্রিটের রাস্তায় একত্রে হাত ধরে ঘুরতে দেখে সহজেই তাদের সম্পর্ক সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিলেন নেটিজেন।

তবে যশরত কিন্তু নিজেদের সম্পর্কের গোপনীয়তা প্রসঙ্গে বেশ সচেতন। নিজের মুখে সম্পর্কের কথা ঘোষণা করার প্রয়োজন মনে করেন না তারা।

বিশেষত ব্যক্তিগত জীবন প্রসঙ্গে সদা সচেতন যশ দাশগুপ্ত। এই প্রসঙ্গে আনন্দবাজারের কাছে একটি সাক্ষাৎকারে যশ জানিয়েছেন,

“আমি ছোট থেকে আজ পর্যন্ত ব্যক্তিগত জীবন কারও সামনে আনিনি। আগামী দিনেও আনব না। তা হলে ‘ব্যক্তিগত’ শব্দটার মানেই থাকে না! যেটুকু জানানোর ঠিক জানাব। যেমন, বরাবর সবাই জানতে পারছেন”।

সমাজ মাধ্যমে নিত্যদিন যশরতকে নিয়ে বহু গুঞ্জন ছড়াচ্ছে। তার সবটা আদতেও সত্যি নয়। সংবাদমাধ্যমের এই অসচেতনতা সম্পর্কে যশের বক্তব্য,

“এক জনের সম্পর্কে যথেচ্ছ ভুল খবর ছড়িয়ে পড়ছে। যেমন, আমার কথাই ধরুন। হয়তো এক মানসিকতা নিয়ে ইনস্টাগ্রাম বা টুইটারে একটি কথা বা কারও লেখা ব্যবহার করলাম। দিনের শেষে দেখলাম সেটা নিয়েই সংবাদমাধ্যম তিল থেকে তাল বানিয়ে দিল!”

নিজের বক্তব্যের স্বপক্ষে একটি উদাহরণও তুলে ধরেছেন যশ। জানিয়েছেন, “এই যে,হঠাৎ একদিন ভুয়ো খবর ছড়িয়ে গেল নুসরত হাসপাতালে ভর্তি হয়ে গিয়েছে। ও ভর্তি হলে, সন্তানের জন্ম দিলে কেন সেটা চেপে রাখব!”

প্রশ্ন তুলেছেন অভিনেতা। নুসরাত প্রসঙ্গে তাকে বারবার প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়। তাদের সম্পর্ক নিয়ে সাধারণের আগ্রহের সীমা-পরিসীমা নেই। এবার সে সম্পর্কে মুখ খুললেন অভিনেতা।

এতদিনে সংবাদমাধ্যমের কাছে নুসরাতকে সরাসরি নিজের সঙ্গিনী হিসেবে পরিচয় দিয়ে প্রশ্ন তোলেন যশ, “সব কথা আমি একা বলব কেন? আমার সঙ্গিনীরও হয়তো কিছু বলার থাকতে পারে।

সেটা ওর মুখ থেকে শোনাই বোধহয় ভাল।” যশ এবং নুসরাতের এই সাহসী সিদ্ধান্তের একদিকে চরম সমালোচনা হচ্ছে ঠিকই। তবে আধুনিকমনস্ক যুব সম্প্রদায় তাদের আদর্শ বলেও মানছেন। সেই বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তার জবাবও দিয়েছেন অভিনেতা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *